ঢাকা ০৪:৫৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

আইনের মারপ্যাঁচে বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে না ‘পাঠান’

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:১০:৪২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২৩
  • / ৪৪১ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বিনোদন ডেস্ক : 

আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা। এরপরই বড় পর্দায় উঠবেন বলিউড বাদশা শাহরুখ খান। দীর্ঘ পাঁচ বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে আগামীকাল (২৫ জানুয়ারি) বিশ্বের শতাধিক দেশে সাড়ে ৭ হাজারের বেশি প্রেক্ষাগৃহে একযোগে মুক্তি পাচ্ছে তার নতুন সিনেমা ‘পাঠান’।

সেই তালিকায় যোগ হতে চেয়েছিল বাংলাদেশও। তবে শেষ পর্যন্ত প্রায় ২৫০ কোটি রুপি বাজেটের সিনেমাটি বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে না।

সাফটা চুক্তির আওতায় সিনেমাটি বাংলাদেশেও একই সময়ে মুক্তি দেওয়া যাবে কি না, মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) সে বিষয়ে জরুরি বৈঠক হয় তথ্য মন্ত্রণালয়ে। যেখানে হাজির ছিলেন মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্তাসহ চলচ্চিত্রকার কাজী হায়াৎ, হলমালিক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের অ্যাডভাইজার সুদীপ্ত কুমার দাস প্রমুখ।

বৈঠক শেষে নিশ্চিত হয় বুধবার (২৫ জানুয়ারি) তো নয়ই, খুব দ্রুত সময়ে ‘পাঠান’ বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে না। কারণ, আইনি জটিলতা। ফলে কিছুদিন ধরে চেষ্টা চালানো বাংলাদেশের অ্যাকশন-কাট এন্টারটেইনমেন্টের চেষ্টাটাও আলোর মুখ দেখছে না।

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. ফারুক আহমেদ বলেন, ছবিটি সাফটা চুক্তির আওতায় আনতে চাইছে। কিন্তু সেখানের একটি ধারায় বলা হয়েছে উপমহাদেশীয় ভাষার ছবি আমদানি রফতানি করা যাবে না। আবার আরেকটি ধারায় বলা হয়েছে ওই চুক্তির আওতায় একটি ছবির বিনিময়ে আরেকটি ছবি আনা নেওয়া করা যাবে। এখন উপমহাদেশীয় ভাষা ক্ষেত্রে তো হিন্দিসহ অনেক ভাষা পড়ে। সবমিলিয়ে ধারা দুটি আমাদের কাছে সাংঘর্ষিক মনে হয়েছে। যেহেতু বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আইন তাই আমরা এর ব্যাখা তাদের কাছে চাওয়ার ব্যাপারে মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। কয়েকদিনের মধ্যে আমরা এ নিয়ে তাদের কাছে চিঠি দিচ্ছি। সেখান থেকে যে ব্যাখা আসবে সে অনুযায়ী আমরা পরবর্তী সিদ্ধান্ত নিবো।’

এ বিষয়ে ওই বৈঠকে উপস্থিত থাকা হলমালিকওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের অ্যাডভাইজার সুদীপ্ত কুমার দাস বলেন, আজকের মন্ত্রণালয়ের আমদানি-রপ্তানিসংক্রান্ত কমিটির বৈঠকে পরিচালক সমিতি ও হল মালিকরা বসেছিলাম। বৈঠকে পাঠান আনার পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন করেছি আমরা। বিপরীতে না আনা পক্ষেও যুক্তি দেওয়া হয়েছে। তবে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। যেহেতু এটা আমদানি রপ্তানির বিষয় তাই বাণিজ্য মন্ত্রলায়েরও বিষয় আছে। তাই আমাদের বিষয়ে সিদ্ধান্তের জন্য বাণিজ্যমন্ত্রনালয়ে পাঠানো হয়েছে। দেখা যাক কি সিদ্ধান্ত আসে।

‘পাঠান’ ছবির মাধ্যমে প্রায় পাঁচ বছর পর পর্দায় ফিরছেন শাহরুখ। জানা যায়, এরই মধ্যে বাংলাদেশের একটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে ভারতের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ইকো এন্টারটেইনমেন্টের কাছে শাকিব খানের ‘পাঙ্কু জামাই’ রপ্তানি করা হয়েছে। সেই ছবির বিপরীতে ‘পাঠান’ আমদানির করা হবে।

খবরটি প্রকাশ্যে আসার পরই অনেক পরিচালক এর বিরোধিতা করেন। মঙ্গলবার মন্ত্রণালয়ের বৈঠকেও জানানো হয় এর মুক্তি না দিতে।

সুদিপ্ত কুমার দাস বলেন, পাঠান’ দেশে মুক্তির অনুমতি মিলবেই। আমরা চাইছিলাম ২৭ জানুয়ারি মুক্তি দিতে। সেটা হয়তো সম্ভব হবে না। না হলে ৩ ফেব্রুয়ারি বা ১০ ফেব্রুয়ারি মুক্তি দেবো।

উল্লেখ্য, ‘পাঠান’ নির্মাণ করেছেন সিদ্ধার্থ আনন্দ। এতে একজন ‘র’ এজেন্টের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন শাহরুখ খান। ভিলেন হিসেবে আছেন জন আব্রাহাম। আর নায়িকা দীপিকা পাড়ুকোন। বিশেষ চমক হয়ে দেখা দেবেন সালমান খানও। ছবিটির বাজেট প্রায় ২৫০ কোটি রুপি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আইনের মারপ্যাঁচে বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে না ‘পাঠান’

আপডেট সময় : ০৭:১০:৪২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২৩

বিনোদন ডেস্ক : 

আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা। এরপরই বড় পর্দায় উঠবেন বলিউড বাদশা শাহরুখ খান। দীর্ঘ পাঁচ বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে আগামীকাল (২৫ জানুয়ারি) বিশ্বের শতাধিক দেশে সাড়ে ৭ হাজারের বেশি প্রেক্ষাগৃহে একযোগে মুক্তি পাচ্ছে তার নতুন সিনেমা ‘পাঠান’।

সেই তালিকায় যোগ হতে চেয়েছিল বাংলাদেশও। তবে শেষ পর্যন্ত প্রায় ২৫০ কোটি রুপি বাজেটের সিনেমাটি বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে না।

সাফটা চুক্তির আওতায় সিনেমাটি বাংলাদেশেও একই সময়ে মুক্তি দেওয়া যাবে কি না, মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) সে বিষয়ে জরুরি বৈঠক হয় তথ্য মন্ত্রণালয়ে। যেখানে হাজির ছিলেন মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্তাসহ চলচ্চিত্রকার কাজী হায়াৎ, হলমালিক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের অ্যাডভাইজার সুদীপ্ত কুমার দাস প্রমুখ।

বৈঠক শেষে নিশ্চিত হয় বুধবার (২৫ জানুয়ারি) তো নয়ই, খুব দ্রুত সময়ে ‘পাঠান’ বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে না। কারণ, আইনি জটিলতা। ফলে কিছুদিন ধরে চেষ্টা চালানো বাংলাদেশের অ্যাকশন-কাট এন্টারটেইনমেন্টের চেষ্টাটাও আলোর মুখ দেখছে না।

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. ফারুক আহমেদ বলেন, ছবিটি সাফটা চুক্তির আওতায় আনতে চাইছে। কিন্তু সেখানের একটি ধারায় বলা হয়েছে উপমহাদেশীয় ভাষার ছবি আমদানি রফতানি করা যাবে না। আবার আরেকটি ধারায় বলা হয়েছে ওই চুক্তির আওতায় একটি ছবির বিনিময়ে আরেকটি ছবি আনা নেওয়া করা যাবে। এখন উপমহাদেশীয় ভাষা ক্ষেত্রে তো হিন্দিসহ অনেক ভাষা পড়ে। সবমিলিয়ে ধারা দুটি আমাদের কাছে সাংঘর্ষিক মনে হয়েছে। যেহেতু বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আইন তাই আমরা এর ব্যাখা তাদের কাছে চাওয়ার ব্যাপারে মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। কয়েকদিনের মধ্যে আমরা এ নিয়ে তাদের কাছে চিঠি দিচ্ছি। সেখান থেকে যে ব্যাখা আসবে সে অনুযায়ী আমরা পরবর্তী সিদ্ধান্ত নিবো।’

এ বিষয়ে ওই বৈঠকে উপস্থিত থাকা হলমালিকওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের অ্যাডভাইজার সুদীপ্ত কুমার দাস বলেন, আজকের মন্ত্রণালয়ের আমদানি-রপ্তানিসংক্রান্ত কমিটির বৈঠকে পরিচালক সমিতি ও হল মালিকরা বসেছিলাম। বৈঠকে পাঠান আনার পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন করেছি আমরা। বিপরীতে না আনা পক্ষেও যুক্তি দেওয়া হয়েছে। তবে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। যেহেতু এটা আমদানি রপ্তানির বিষয় তাই বাণিজ্য মন্ত্রলায়েরও বিষয় আছে। তাই আমাদের বিষয়ে সিদ্ধান্তের জন্য বাণিজ্যমন্ত্রনালয়ে পাঠানো হয়েছে। দেখা যাক কি সিদ্ধান্ত আসে।

‘পাঠান’ ছবির মাধ্যমে প্রায় পাঁচ বছর পর পর্দায় ফিরছেন শাহরুখ। জানা যায়, এরই মধ্যে বাংলাদেশের একটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে ভারতের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ইকো এন্টারটেইনমেন্টের কাছে শাকিব খানের ‘পাঙ্কু জামাই’ রপ্তানি করা হয়েছে। সেই ছবির বিপরীতে ‘পাঠান’ আমদানির করা হবে।

খবরটি প্রকাশ্যে আসার পরই অনেক পরিচালক এর বিরোধিতা করেন। মঙ্গলবার মন্ত্রণালয়ের বৈঠকেও জানানো হয় এর মুক্তি না দিতে।

সুদিপ্ত কুমার দাস বলেন, পাঠান’ দেশে মুক্তির অনুমতি মিলবেই। আমরা চাইছিলাম ২৭ জানুয়ারি মুক্তি দিতে। সেটা হয়তো সম্ভব হবে না। না হলে ৩ ফেব্রুয়ারি বা ১০ ফেব্রুয়ারি মুক্তি দেবো।

উল্লেখ্য, ‘পাঠান’ নির্মাণ করেছেন সিদ্ধার্থ আনন্দ। এতে একজন ‘র’ এজেন্টের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন শাহরুখ খান। ভিলেন হিসেবে আছেন জন আব্রাহাম। আর নায়িকা দীপিকা পাড়ুকোন। বিশেষ চমক হয়ে দেখা দেবেন সালমান খানও। ছবিটির বাজেট প্রায় ২৫০ কোটি রুপি।