বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:১১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
যমুনা-হুরাসাগরে ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস দিয়ে রাতের আধারে মাছ শিকার বিজয়ের মাস শুরু সৌদি আরবকে হারিয়েও নক আউটে যেতে পারলো না মেক্সিকো গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ ষোলোয় আর্জেন্টিনা বৃহস্পতিবার থেকে রাজশাহী বিভাগে পরিবহন ধর্মঘট ১৬ বছর পর ডেনমার্ককে হারিয়ে শেষ ষোলো’তে অস্ট্রেলিয়া চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সকে হারিয়েও তিউনিসিয়ার কান্না রাউজানে ডাকাতির ঘটনায় র‌্যাবের হাতে আরো এক ডাকাত আটক রাউজানে স্কুল থেকে ফেরার পথে ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টায় যুবক কারাগারে রাউজানে ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার ‘আওয়ামী লীগ গরীব দুখী মেহনতি মানুষের কল্যানে রাজনীতি করে’ -কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে এমপি মুহিব ডিমলায় বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা রিজার্ভ কমে ৩৩ বিলিয়নে নেমেছে নিউজিল্যান্ডদের কাছে সিরিজ হারল ভারত তিন নারী রেফারি, ইতিহাস গড়তে যাচ্ছে কাতার বিশ্বকাপ

অবৈধ সম্পদের মামলায় কাউন্সিলর রাজীবের জামিন

অবৈধ সম্পদের মামলায় কাউন্সিলর রাজীবের জামিন

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিল মো. তারেকুজ্জামান রাজীবের জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বুধবার (১৬ নভেম্বর) ঢাকার সাত নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক প্রদীপ কুমার রায় এ জামিনের আদেশ দেন।

এদিন রাজীবের পক্ষে জামিন শুনানি করেন আইনজীবী শাহিনুর রহমান। শুনানি শেষে আদালত ১০ হাজার টাকা মুচলেকায় রাজীবের জামিনের আদেশ দেন। একই সঙ্গে আগামী ১৯ ডিসেম্বর সাক্ষ্য গ্রহণের তারিখ ধার্য করেছেন।

রাজীবের আরেক আইনজীবী খাজা গোলামুর রহমান জানান, তার বিরুদ্ধে আরও মামলা থাকায় এখনি তিনি কারামুক্ত হতে পারছেন না। উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ১৯ অক্টোবর রাত সাড়ে ৯টার দিকে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার ৮ নম্বর রোডের ৪০৪ নম্বরে এক বন্ধুর বাসা থেকে কাউন্সিলর রাজীবকে আটক করে র‌্যাব। এ সময় তার কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, তিন রাউন্ড গুলি, একটি ম্যাগজিন, ৭ বোতল বিদেশি মদ ও নগদ ৩৩ হাজার জব্দ করা হয়।

এরপর রাজীবের মোহাম্মদপুর হাউজিং সোসাইটির বাসায় অভিযান চালানো হয়। একই দিন তার অফিসে অভিযান চালায় র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। সেখানে ৫ কোটি টাকার বিভিন্ন ব্যাংকের চেক বই জব্দ করা হয়। ওই বছরের ৬ নভেম্বর কাউন্সিল রাজীবের বিরুদ্ধে ২৬ কোটি ১৬ লাখ ৩৫ হাজার ৯০৫ টাকার অবৈধ সম্পদের অর্জনের অভিযোগে দুদকের সহকারী পরিচালক মামুনুর রশীদ চৌধুরী মামলাটি দায়ের করেন। ২০২১ সালে তিনি রাজীবের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *