ঢাকা ০১:৪৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

অন্তঃসত্ত্বা অবস্থাতেই শুটিং করলেন মাহি

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:৩৩:৫৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ অক্টোবর ২০২২
  • / ৫০৬ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বিনোদন ডেস্ক : 

গত কয়েক মাস আগেই নিজের অন্তঃসত্ত্বার খবর দেন চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। এরপর থেকেই পরিবারের সঙ্গে বাড়িতেই অবসর সময় কাটাচ্ছিলেন তিনি। তবে এবার মাহিকে দেখা মিললো সিনেমার শুটিং সেটে। অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় করলেন সিনেমার গানের শুটিং।

বদিউল আলম খোকন পরিচালিত ‘অফিসার’ সিনেমার বাকি থাকা দুটি গানের একটির দৃশ্যায়ণে অংশ নিয়েছেন তিনি। ১৭ ও ১৮ অক্টোবর সাভারের লোকেশনে একটি গানের শুটিং শেষ হয়েছে। ‘তোমার আমার একটাই তো মন’ গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন ন্যানসি ও আকাশ মাহমুদ। কোরিওগ্রাফিতে ছিলেন হাবিবুর রহমান। আরেকটি গানের শুটিং হবে আগামী মাসের প্রথম দিকে।

গণমাধ্যমকে মাহি জানান, শুরুতে কক্সবাজারে গানের শুটিং হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু পরে জায়গা পরিবর্তন করা হয়। খুব সাবধানতা অবলম্বন করেই শুটিং করলাম। গানে কোনো নাচ ছিল না। হেঁটে হেঁটে শুটিং করেছি। প্রথমে শুটিংয়ের লোকেশন ছিল কক্সবাজার। শরীরের কথা ভেবে জায়গা পরিবর্তন করে কাছাকাছি নেওয়া হয়েছিল লোকেশন।

তিনি আরো বলেন, ছবিটির শুধু দুটি গানই বাকি ছিল। একটা শেষ করলাম। আগামী মাসের প্রথমে বাকিটা শেষ করব। এখনই না করলে পরে কাজটি ফেঁসে যাবে। এ জন্য কষ্ট করে হলেও কাজ শেষ করে দিচ্ছি। কারণ, বাচ্চার কারণে শরীরের জন্য এখন প্রতিদিনই একটি করে ইনজেকশন নিতে হয় আমার। তা ছাড়া দিন যত যাবে, চলাফেরা কঠিন হতে থাকবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

অন্তঃসত্ত্বা অবস্থাতেই শুটিং করলেন মাহি

আপডেট সময় : ০৪:৩৩:৫৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ অক্টোবর ২০২২

বিনোদন ডেস্ক : 

গত কয়েক মাস আগেই নিজের অন্তঃসত্ত্বার খবর দেন চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। এরপর থেকেই পরিবারের সঙ্গে বাড়িতেই অবসর সময় কাটাচ্ছিলেন তিনি। তবে এবার মাহিকে দেখা মিললো সিনেমার শুটিং সেটে। অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় করলেন সিনেমার গানের শুটিং।

বদিউল আলম খোকন পরিচালিত ‘অফিসার’ সিনেমার বাকি থাকা দুটি গানের একটির দৃশ্যায়ণে অংশ নিয়েছেন তিনি। ১৭ ও ১৮ অক্টোবর সাভারের লোকেশনে একটি গানের শুটিং শেষ হয়েছে। ‘তোমার আমার একটাই তো মন’ গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন ন্যানসি ও আকাশ মাহমুদ। কোরিওগ্রাফিতে ছিলেন হাবিবুর রহমান। আরেকটি গানের শুটিং হবে আগামী মাসের প্রথম দিকে।

গণমাধ্যমকে মাহি জানান, শুরুতে কক্সবাজারে গানের শুটিং হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু পরে জায়গা পরিবর্তন করা হয়। খুব সাবধানতা অবলম্বন করেই শুটিং করলাম। গানে কোনো নাচ ছিল না। হেঁটে হেঁটে শুটিং করেছি। প্রথমে শুটিংয়ের লোকেশন ছিল কক্সবাজার। শরীরের কথা ভেবে জায়গা পরিবর্তন করে কাছাকাছি নেওয়া হয়েছিল লোকেশন।

তিনি আরো বলেন, ছবিটির শুধু দুটি গানই বাকি ছিল। একটা শেষ করলাম। আগামী মাসের প্রথমে বাকিটা শেষ করব। এখনই না করলে পরে কাজটি ফেঁসে যাবে। এ জন্য কষ্ট করে হলেও কাজ শেষ করে দিচ্ছি। কারণ, বাচ্চার কারণে শরীরের জন্য এখন প্রতিদিনই একটি করে ইনজেকশন নিতে হয় আমার। তা ছাড়া দিন যত যাবে, চলাফেরা কঠিন হতে থাকবে।